Thursday, January 12, 2017

গড়পঞ্চকোট-এর প্রতি

আমরা যে কজন একসাথে বড় হয়েছি,
শুধু তারাই জানি একসাথে হইহই করে বুড়ো হওয়ার মানে।
যত হিসেবনিকেশ ছাড়াই চলে যেতে পারি -
কৈফিয়ত দেওয়ারও আগে -
যেতে পারি হুকুম দিয়ে।
কীভাবে কেড়ে নিতে পারি মূল্যবান যা কিছু;
শুধু আমরাই জানি।

আমরা যে কজন একসাথে বড় হয়েছি,
শুধু তারাই জানি কীভাবে গোলাপি আলোয় ফোটে দার্জিলিং ভোর
দুরন্ত ডুয়েল ভাসে দিগন্তের মাঠে,
ইতিহাস হয়ে থাকে যত -
স্পর্ধার কাহিনী।
কীভাবে ডুবে যায় নতুন কেডস-এর বিষণ্ণ বিকেল।
শুধু আমরাই জানি।

আমরা যে কজন একসাথে বড় হয়েছি,
শুধু তারাই জানি কবেকার নীলে রাখা আমাদের প্রথম দ্বিতীয় বিচ্যুতি
কীভাবে সিগারেট ধোঁয়া ওঠে আকাশ ভেঙ্গে -
মুহূর্তে হয়ে যায় বিপন্ন উল্লাস।
প্রথম সানগ্লাস-এ,
কীভাবে চুমু আঁকে ইউক্যালিপটাস-এর স্রোত।
শুধু আমরাই জানি

আমরা যে কজন একসাথে বড় হয়েছি,
শুধু তারাই জানি কীভাবে আজন্ম চোকাতে হয় ভালোবাসার দাম
কৃষ্ণচূড়া কিশোরের প্রেম, নিষিদ্ধ দুপুরের গায়ে -
রেখে যায় পাতাঝরা পথ আর,
নবীন প্রতিশ্রুতি
কীভাবে অবিরাম ওঠে নামে মায়াবন্দর-এর ঢেউ;
শুধু আমরাই জানি।

আমরা যে কজন একসাথে বড় হয়েছি,
শুধু তারাই জানি রাস্তা- পারে হারানো মুখ খুঁজে পাবার সকরুণ সুখ
কথা ভাসে গাংচিল-স্মৃতি, এসে বসে প্রাচীন পায়রার ঝাঁক।
গোপন কুঠুরি থেকে হটাৎ বেরনো,
পুরনো পোস্টকার্ড;
আর সব রং-তুলি-ইজেল-এর ভার নিতে,
শুধু আমরাই জানি।

আমরা যে কজন একসাথে বড় হয়েছি,
শুধু তারাই জানি খবর, আমাদের সযত্নে অর্জিত মায়াসরোবর
এক ডুব শ্বাস-এ ভেসে চলে যেতে পারি,
ছররা স্টেশন-এর ধারে।
শীতঘুম ভেঙ্গে;
কীভাবে আজও ছোটে হাফপ্যান্ট, শিশির-জমানো মাঠে।
শুধু আমরাই জানি।

আমাদের বয়স বাড়েনি, বাড়েনা কোনোদিনও।
আমাদের অমরত্ব-লাভ-এর পথে,
সেইসব লাল মাটি আর সবুজ পাহাড়-এর রূপকথা,

শুধু আমরাই জানি।

No comments:

Post a Comment